বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠকে মধ্যস্থতা করবে চীন

চলতি মাসের শেষের দিকে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সদস্য দেশগুলো এ অধিবেশনে অংশ নেবে।এতে যোগ দিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের নিউইয়র্ক যাওয়া মোটামুটি চূড়ান্ত। জাতিসংঘের এ অধিবেশনে যাবেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী অং সান সুচির প্রতিনিধি দেশটির মন্ত্রী চাউ থিন মোয়ে এবং চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েং ই-ও।

এ তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়ার প্রেক্ষিতে রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন ত্রিপক্ষীয় এক বৈঠকের আয়োজন করেছে। সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত ২২ আগস্ট দ্বিতীয়বারের মতো রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ব্যর্থ হওয়ার কয়েকদিন পরেই মিয়ানমারের সঙ্গে বৈঠকে বসার জন্য বাংলাদেশকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে প্রস্তাব দেয় চীন।

পরে ড. মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, বৈঠকের দিন তারিখ ঠিক হয়নি। চীনের রাষ্ট্রদূত আমার সঙ্গে দেখা করেছেন। তারা মিয়ানমারের সঙ্গে আলাপ করে আমাদের জানাবেন।

বৈঠকের বিষয়ে ঢাকার পক্ষ থেকে বলা হয়, এ সংকট নিরসনে বাংলাদেশ যেকোনো স্থানে বৈঠকে বসতে রাজি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *